রেজি: নং - আবেদিত, প্রতিষ্ঠাকাল: ১মার্চ ২০১৪                                           রবিবার,  ৭ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,  ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,  ভোর ৫:০৯

এক সময়ের তুখোর বিএনপি নেতা বোরহান মুন্সি এখন হাইব্রিড আওয়ামীলীগ

July 1, 2019 , 12:30 pm

শরীয়তপুর সদর উপজেলার পালং ইউনিয়নে কথিত আওয়ামীলীগ নেতা ইউপি সদস্য বোরহান মুন্সির উত্থান বিএনপির রাজনীতি থেকেই বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। আওয়ামীলীগ থেকে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হলেও তাকে এর আগে কখনোই আওয়ামীলীগের রাজনীতি করতে দেখেনি এলাকাবাসী। বরং ২০০১ সালেে অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বোরহান মুন্সি নির্বাচন করেছিলেন বিএনপি দলীয় সাবেক এমপি আওরঙ্গজেব এর পক্ষে। ওই নির্বাচনে আওরঙ্গজেব এর প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন মুবারাক আলি সিকদার।

আওয়ামীলীগের নেতা পরিচয় দিয়ে বেড়ালেও শহরে সে বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিল এবং এখনো আছে । সে পালং ইউনিয়নের যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক নেতা হিসেবে বিএনপির বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচীতে তাকে দেখা গেছে বলেও জানিয়েছে বিএনপি নেতাকর্মীরা। পালং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে উড়ে এসে জুড়ে বসা এই বোরহান নেতাকে হাইব্রীড নেতা বলেও এর আগে সম্বোধন করেছেন পালং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতারা।

উল্লেখ্য বোরহান মুন্সির বিরুদ্ধে শরীয়তপুর পালং মডেল থানায় ২০০১ সালে বিএনপি সরকার আসার পর পালং ইউনিয়ন আওয়ামীগের ক্লাব আগুনে পোড়া মামলার ৩ নং আসামি। আরো মামলায় দেখা যায় যেখানে তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজী, ভূমি দখল,আওয়ামীলীগের নেতা কর্মিদের উপর হামলার অভিযোগ পাওয়া যায়। এবং বোরহান মুন্সির আপন ছোট ভাই জাহাঙ্গীর মুন্সীর বিরুদ্ধে ডাকাতি মামলার ও অভিযোগ পাওয়া যায়, তার পরিবারের সকলেই বিএনপির সাথে জড়িত।

পালং ইউনিয়ন আওয়ামীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবুল দেওয়ান বলেন, নব্য হাইব্রীড নেতাদের দাপট শুধু পালং ইউনিয়ন নয় জেলার সর্বত্রই রয়েছে। তাদের কারণে মাঠ পর্যায়ের ত্যাগী নেতাকর্মীরা অবমূল্যায়িত হচ্ছেন। পালং ইউনিয়নে বোরহান মুন্সীর আওয়ামীলীগের কোন পদে নেই সে তুখোর বিএনপি নেতা এবং পালং ইউনিয়ন যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক এখনো আছে। যারা আওয়ামীলীগের কোন পদে না থেকেও আওয়ামীলীগের নেতা পরিচয় দিচ্ছেন এ ধরনের কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

Total View: 2032

    আপনার মন্তব্য


[fbcomments]