রেজি: নং - আবেদিত, প্রতিষ্ঠাকাল: ১মার্চ ২০১৪                                           রবিবার,  ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,  ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,  রাত ১২:৩৮

চর পালং গ্রামে ঘর উচ্ছেদ করে সন্ত্রাসী কর্তৃক অসহায় পরিবারের যায়গা দখলের অভিযোগ।

August 11, 2018 , 6:56 pm

শরীয়তপুর সদর উপজেলারর চর পালং গ্রামে
প্রভাবশালী ভূমিগ্রাসী কর্তৃক এক হত দরিদ্র পরিবারের বাড়ি-ঘর ভাংচুর করে লুটপাট করেছে মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভাংচুর করে পরিবারটিকে উচ্ছেদের অপচেষ্টা চালানো হয়েছে এবং ঘর থেকে বের করে বাইরে দিয়ে দরজায় তালা লিগিয়ে দেওয়া হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার দুপুর ১২ টার দিকে।

প্রভাবশালীদের হুমকি-ধামকি ও ভয়ে পরিবারটি চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে।

জানাযায়, ৬০ নং পালং মৌজার অার,এস ৬০৫ নং খতিয়ানের ২৬৪নং দাগের ও এস,এ ৫০২ খতিয়ানের ২৬৪ নং দাগের ৭৮ শতাংশ জমির রেকর্ডিয় মালিক একরাম অালি বেপারি। পরবর্তীতে বি,অার,এস পর্চায় অনেকগুলো দাগ হয় তার মধ্যে বি,অার,এস ১০৩৪ নং খতিয়ানের ১৮৭০,১৮৭১,১৮৭৫ নং দাগের ১৩.৮৮ শতাংশ জমির মালিক হন একরাম অালি বেপারির ৩ ছেলে সেকেন্দার বেপারি, এসকান্দার বেপারি,সাজাহান বেপারি ও তার ৪ মেয়ে চন্দ্রভান বিবি,সহরজান বিবি,ময়না বিবি,সাহানাজ বেগম এবং ২ স্ত্রী নুরজাহান বিবি,ছটু বিবি। এর মধ্যে এসকান্দার বেপারির পইত্তিক সুত্রে পাওয়া ৬ শতাংশ জমি ২৪/১০/২০১১ ইং তারিখে বিক্রি করে দেন তার ভাই সেকেন্দার বেপারির কাছে।পরে এসকান্দার বেপারির কোন জমি না থাকায় এসকান্দার বেপারি ও তার স্ত্রী বিউটি বেগমকে নিয়ে সেকেন্দার বাড়িতেই বসবাস করতো এবং একই বাড়িতে সহরজান বিবি তার মেয়ে মরিয়মকে নিয়ে বসবাস করতো যার হোল্ডিং নম্বর ০৬৪৩-০২। এর পরে ২০১২ সালে এসকান্দার বেপারি মারা গেলে তার স্ত্রী বিউটি বেগম অন্যত্রে বিয়ে করেন এবং সে খানেই বসবাস করেন। ২০১৮ সালে জুলাই মাসে বিউটি বেগম জাল দলিলের মাধ্যমে কাশেম খানের কাছে বিক্রি করেন।
এ বিষয়ে ভুক্তভোগী মরিয়ম বেগম বলেন, বাদল বেপারি,বিউটি বেগম ও সাজাহান সহ ১০ থেকে ১২ জন ভাড়া করা সন্ত্রাসী নিয়ে আমার ঘরের দরজা ভেঙে ঘরে থাকা মাল পত্র সব বাইরে ফেলে দেয় এবং আলমারিতে থাকা ২০ হাজার টাকা ও ২ ভরি স্বর্ন অলংকার লুটপাট করে নিয়ে যায়। পরে অামাকে বাড়ি থেকে চলে যাইতে বলে না গেলে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

এবিষয়ে পালং থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরউজ্জামান বলেন, ঘটনাটি অামি শুনেছি লিখিত অভিযোগ দিলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যাবস্থা নিব।

Total View: 1192