রেজি: নং - আবেদিত, প্রতিষ্ঠাকাল: ১মার্চ ২০১৪                                                    মঙ্গলবার,  ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং,  ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,  রাত ৪:৩৮

শরীয়তপুরের স্বর্নঘোষ গ্রামে শতাধিক কাঠগাছ জোড় পূর্বক কেঁটে ফেলার অভিযোগ।

August 18, 2019 , 7:07 pm

শরীয়তপুর সদর উপজেলার পৌরসভার ৮নংওয়ার্ডের স্বর্নঘোস গ্রামের বৃক্ষ প্রেমিক আঃ কাদের বয়াতীর ২৫ শতাংশ জমির উপর মেহগানি গাছ রপন করেছেন। কিন্তু ভূমিদস্যুরা রাতের আধারে শতাধিক কাঠ গাছ কেটে ফেলেছে বলে পাওয়াগেছে।
গত শনিবার সরজমিনে গিয়ে জানা যায় স্বর্নগোষ গ্রামের আঃকাদের বয়াতী বিগত ০৭/০৩/১৭ ইং তিনি তার ফুপু লালমনির ছেলে মেয়েদের কাছ থেকে সাবরেজিস্ট্রার দলিলের মাধ্যমে ২৫ শতাং জায়গা ক্রয় করেন এবং উক্ত জমিতে শতাধিক গাচের চারা রোপন করেন। উক্ত জমির দক্ষিনে অভিজুক্ত মোঃ গিয়াসউদ্দিন বয়াতী তার স্ত্রী শাহিনা খানম নামে বিগত ৩১/১০/১৮সালে জনৈকা জলেফা বেগম ও রফে জালিমনের নিকট থেকে ক্রয় করেন। আঃ কাদের বয়াতী জমি ক্রয়য়ের পড় মোঃ গিয়াস উদ্দিন বয়াতী বিভিন্ন ভাবে এই জমি নিয়ে প্রান নাশের হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিল কাদের বয়াতীকে। এক পর্যায়ে কাদের বয়াতীর ছোট ভাই হাকিম বয়াতী জমিতে গাছের চারা রোপন করতে গেলে গিয়াসউদ্দীন বয়াতীসহ ৪/৫জন লোক বাঁধা প্রদান করেন। এসময় কাদের বয়াতী গিয়াসউদ্দীন বয়াতীর কাছে এস্থানিও গন্যমার্ন্য লোক মিমাংশার জন্য আহবান জানান। জবাবে গিয়াসউদ্দীন বয়াতী জানান- তিনি কাদের বয়াতীর চাড়াগাছ উপরে ফেলবেন। এক পর্যায়ে গত ৯ আগস্ট ২০১৯ আনুমানিক রাত ১ ঘটিকার সময় কাদের বয়াতী তার অসুস্থ স্ত্রীর জন্য দিঘীর পাড় রুহুল আমীনের ফার্মেসীতে ঔষধ আনতে যাওয়ার সময় উক্ত জমির সামন উতপেতে থাকা জমিতে ৪/৫জন লোক দেখতে পান। এমতাবস্থায় তিনি জিজ্ঞেস করলে গিয়াসউদ্দীন বয়াতীসহ অন্যরা প্রায় শতাধিক কাঠচাড়া উপরে ফেলে এবং পশ্চিম দিকে পালিয়ে যায়। বিষয়টি তিনি স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিদের জানালে বিষয়টি মিমাংশার চেষ্টা করেন কিন্ত ভূমিদস্যু গিয়াসউদ্দিন বয়াতী অসহযোগিতামূলক আচরণ করেন। অভিযুক্ত গিয়াস বয়াতী কাদের বয়াতীর বিরুদ্ধে নাননভাবে ষড়যন্ত্র করন এবং বিভিন্নভাবে কুৎসা রটিয়ে হুমকি প্রদর্শন করতে থাকেন। বিষয়টি আইনের সহায়তা না পেলে যেকোন মুহূর্তে মারত্মক সংঘর্ষ সৃষ্টি হতে পারে বলে অভিজ্ঞ মহলের ধারনা। বিষয়টির সূষ্ঠ সমাধান চেয়েছেন ভুক্তভোগী আব্দুল কাদের বয়াতী।
নামপ্রকাশ না করার শর্তে এলাকার অনেক লোকজন গিয়াসউদ্দীন বয়াতীর বে-পরোয়া চলাফেরা, নানান রকম হুমকি-ধমকি ও সন্ত্রাসী কার্যকালাপের বিরুদ্ধে ব্যাপক খোভ ও নিন্দা প্রকাশ করেছেন।
এ ব্যাপারে কাদের বয়াতী প্রশাসনের নিকট সঠিক বিচার দাবী করেছেন।
গিয়াসউদ্দিন বয়াতী নানা অপকর্মে জ্বড়িত বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।বিগত ১৮/০২/১৯ ইং এলাকার ইসমাইল বয়াতী গিয়াস উদ্দিন বয়াতীর নামে শরীয়তপুর পুলিশ সুপারের নিকট জমির লেখিত অভিযোগ দায়ের করে সুবিচারর দাবী করেছেন তাতেও গিয়াস উদ্দিন বয়াতী ক্ষেন্ত হননি।তাকে নিয়ে শরীয়তপুর পালং মডেল থানার ওসি তদন্ত মোঃ হুমায়ন কবির উপস্থিতিতে এধীক বার দরবার করা ও হয় কিন্তু সে বিভিন্ন অজুহাতে দরবার থেকে পালিয়ে জায়।তাই তাহার বিুদ্ধে দুরুত্ব ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন এলাকার সচেতন মহল।

Total View: 563

    আপনার মন্তব্য


[fbcomments]